প্রতিদিনের বাংলাদেশ ডেস্ক:

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগকে দায়ী করা ঠিক নয় বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

মঙ্গলবার (১৫ অক্টোবর) দুপুরে সচিবালয়ে সমসাময়িক ইস্যুতে আলাপকালে তিনি সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন। ওবায়দুল কাদের বলেন, আবরার হত্যাকাণ্ড সরকার ও দলের জন্য বিব্রতকর। কারণ, ক্ষমতাসীন দলের ব্যানারে এটি ঘটেছে। তবে সে জন্য কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগকে দায়ী করা ঠিক নয়।

তিনি বলেন, যারা অপরাধী, তাদের সেভাবেই বিচার হবে। গুটি কয়েকের দায়ভার গোটা পার্টি নেবে না। তবে সরকার ক্ষমতায় আছে, তাই দায় নিতে হবে। এর মাধ্যমে সরকারের ভাবমূর্তি নষ্ট হয়েছে।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, আবরার হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় শুধু নিন্দা নয়, তড়িৎ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। আগে কখনও এতো তড়িৎ ব্যবস্থা কেউ নেয়নি। প্রধানমন্ত্রী ঘটনার পর আইজিপিকে ডেকে নিয়ে সব অপরাধীকে গ্রেফতার করতে বলেছেন। ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতারও করা হয়েছে।

তিনি বলেন, আবরারের পরিবার গতকাল (সোমবার) প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করেছেন। সেখানে প্রধানমন্ত্রী তাদের বলেছেন, যতদ্রুত সম্ভব অপরাধীদের বিচার হবে। আইনমন্ত্রীকেও বলেছেন যত দ্রুত সম্ভব অপরাধীদের বিচার করতে হবে।

ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, শিক্ষার্থীদের সব দাবি মেনে নেওয়া হয়েছে, তাহলে এখনও আন্দোলন কেন? যেহেতু সরকার তড়িৎ ব্যবস্থা নিয়েছে, সব দাবি মেনে নেওয়া হয়েছে অহেতুক আন্দোলন না করে পড়াশোনায় মনোনিবেশ করা উচিত।

আবরার হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় বিএনপির সমালোচনা করে তিনি বলেন, আবরার হত্যাকাণ্ড নিয়ে উদ্বেগ নেই তাদের (বিএনপি)। এটাকে তারা আন্দোলনের ইস্যু বানাতে চাইছে। এটা নিয়ে তারা আন্দোলন করতে চায়। নইলে তারা এটি নিয়ে কেন উস্কানি দিচ্ছে।

বিএনপির উদ্দেশে তিনি বলেন, তারা হার্ডলাইনে গেলে গণতন্ত্রের জন্য ভালো, হার্ডলাইনের পক্ষে আমরা। খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য নিয়ে তারা (বিএনপি) যতটা না উদ্বিগ্ন, তার চেয়ে শারীরিক অবস্থা নিয়ে কোনো রাজনীতির ইস্যু পাওয়া যায় কিনা সেটি নিয়ে বেশি চেষ্টা তাদের।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here